কলকাতায় 'জ্ঞান মঞ্চ'-এ পুণ্য  দর্শন গুপ্তার একক নাটক ‘দয়াশঙ্কর কী ডায়েরী’

কলকাতায় 'জ্ঞান মঞ্চ'-এ পুণ্য  দর্শন গুপ্তার একক নাটক ‘দয়াশঙ্কর কী ডায়েরী’

আরোহী নিউজ ডেস্ক  : অলাভজনক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'মি অ্যাণ্ড মাই ফ্রেণ্ড'-এর সহযোগিতায় কলকাতার 'জ্ঞান মঞ্চ'-এ অনুষ্ঠিত হল 'দয়াশঙ্কর কী ডায়েরী'।  নৃত্যশিল্পী মায়া ভট্টাচার্য-র 'গণেশ বন্দনা'-র মাধ্যমে শুরু হয় সান্ধকালীন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। নৃত্যানুষ্ঠানের পরে মঞ্চে মুখ্য অতিথি রূপে বরণ করে নেওয়া হয় বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্ব শিওকুমার ঝুনঝুনওয়ালা -কে। নাদিরা জাহির বব্বর-এর কাহিনী অবলম্বনে কলকাতায় এই প্রথম হয়ে গেল বিশেষ নাটক 'দয়াশঙ্কর কী ডায়েরী'। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী কিষেনকুমার আগরওয়াল, কোলকাতা বিনোদন জগতের অন্যতম পরিচিত মুখ জয় বদলানি-র মতো একাধিক স্বনামধন্য ব্যক্তিরা।

বলিউড ও টলিউডের বড়ো ও ছোটো পর্দা খ্যাত অভিনেতা পুণ্যদর্শন গুপ্তা-র পরিচালননা সমৃদ্ধ নাটকে রয়েছে মনোজগতের চিন্তার ইন্ধন। কাহিনী অনুসারে এক গরীব ঘরের ছেলে ফিল্মস্টার হওয়ার স্বপ্ন বুকে নিয়ে চলে আসে মুম্বই শহরে। কিন্তু, ফিল্মস্টার হওয়ার বদলে তাঁকে তাঁর ইচ্ছার বিরুদ্ধেই করতে হয় কেরানির কাজ। একদিকে তাঁর স্বপ্ন ও আশা আকাঙ্খা অন্যদিকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে কর্মজগতে নিজেকে জড়িয়ে রাখার বাধ্যবাধকতা তাঁকে ভেতর ভেতর কুড়েকুড়ে খেতে থাকে। জীবনের আর্থিক টানাপোড়েন ও স্বপ্ন নষ্ট হতে চলার গভীর যন্ত্রণা এই নাটকের বিষয়। ফিল্মস্টার হওয়ার স্বপ্ন দেখা এক তরুণের স্বপ্নভঙ্গের যন্ত্রণা এই নাটকের নিপুণভাবে ফুটিয়ে তলা হয়েছে। 

প্রখ্যাত অভিনেতা পুণ্যদর্শন গুপ্ত নাটকের পাশাপাশি সমানভাবে বিখ্যাত রূপালী পর্দাতেও। ১৯৯৯ সালে তাঁর অভিনীত 'দ্য গোল' দর্শকদের মন ছুঁয়ে যায়।বর্তমানে ‘মিঠাই’ ধারাবাহিকেও তাঁর অভিনয় মানুষের মন ছুঁয়ে যায়। পুণ্যদর্শন গুপ্তার উল্লেখ যোগ্য  বিভিন্ন চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে 'ইয়ে জওয়ানী হ্যায় দিওয়ানী' (২০১৩), 'দ্য বিগ বঙ কানেকশন (২০১৮) প্রমুখ কাহিনীচিত্র।