মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে গর্ভপাতের অধিকার বাতিল, বিরোধিতা ৭১ শতাংশ মার্কিন নাগরিকের

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে গর্ভপাতের অধিকার বাতিল, বিরোধিতা ৭১ শতাংশ মার্কিন নাগরিকের

৫০ বছর পরে সুপ্রিম কোর্ট গর্ভপাতের অধিকার বাতিল করার পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে চলছে তুমুল প্রতিবাদ। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বিডেন অবশ্য সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের সঙ্গে সহমত নন। বিডেন জানিয়েছেন, হোয়াইট হাউস পরিস্থিতি কোনদিকে গড়াচ্ছে সেব্যাপারে নজর রাখছে। সূত্রের খবর, সুপ্রিম কোর্টের রায় সত্ত্বেও মার্কিন মুলুকের সব রাজ্যে গর্ভপাত নিষিদ্ধ করবে না।তবে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গর্ভপাত বেআইনি করার ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্পের বক্তব্য, সুপ্রিম কোর্টের এই রায় মার্কিন সংবিধানের জয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গর্ভপাতের অধিকার বাতিলের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছে ভ্যাটিক্যান সিটি। ভ্যাটিক্যানের তরফে জানানো হয়েছে, যাঁরা গর্ভপাতের অধিকার বাতিলের বিরোধিতা করছেন তাঁরা বরং মাতৃত্বকালীন মৃত্যুর উর্দ্ধমুখী হার, দারিদ্র্য থেকে শুরু করে মার্কিন মুলুকে আগ্নেয়াস্ত্র সহজলভ্য হওয়ার বিরোধিতা করুন।

গত মাসে গর্ভপাত সংক্রান্ত একটি সমীক্ষা চালানো হয় আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের তরফে। তাতে ৭১ শতাংশ মার্কিন নাগরিক মনে করেন গর্ভপাত করানো হবে কিনা সেটা সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করছে একজন নারী এবং চিকিৎসকের ওপর। এঁদের মধ্যে রয়েছেন রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট সমর্থক দুপক্ষই। মার্কিন মুলুকের সুপ্রিম কোর্ট গর্ভপাতের অধিকার বাতিল করাতে হতাশ আয়ার্ল্যান্ড। মোটে কয়েক বছর আগে আয়ার্ল্যান্ডে গর্ভপাতের অধিকার বৈধতা পেয়েছে। মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালও মার্কিন মুলুকের সুপ্রিম কোর্টের রায়ে হতাশ।