বিধানসভার ঘটনা বিজেপির ষড়যন্ত্র, অভিযোগ পার্থর

বিধানসভার ঘটনা বিজেপির ষড়যন্ত্র, অভিযোগ পার্থর

আরোহী নিউজ ডেস্ক: বাজেট অধিবেশনের শেষ দিনে ধুন্ধুমার কাণ্ড বিধানসভায়। তৃণমূল-বিজেপি বিধায়কদের হাতাহাতিতে এদিন নজিরবিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকল রাজ্য। এই ঘটনায় বিজেপি তৃণমূল একে অপরের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাচ্ছে। এরমধ্যেই বিধানসভার ঘটনা বিজেপির ষড়যন্ত্র বলেই দাবি করলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। পরিকল্পনা মাফিক এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলেই অভিযোগ তৃণমূলের মহাসচিবের।

বিধানসভায় অশান্তির জন্য বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকেই করেছে তৃণমূল। এদিন দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'পরিকল্পিত ভাবে অশান্তি করেছে বিজেপি। গোটা ঘটনাটাই ষড়যন্ত্রমূলক। যা বাইরে করছে তাই বিধানসভার অন্দরে করতে চাইছে বিজেপি বিধায়করা। ওরা শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত করতে চাইছে।' রাজ্যের উন্নয়ন সহ্য করতে না পেরেই বিজেপি এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলেই কটাক্ষ করেন তৃণমূলের মহাসচিবের। একই সঙ্গে তৃণমূল গণতান্ত্রিকভাবে বিজেপির এই তাণ্ডবের প্রতিবাদ জানাবে বলেও জানান পার্থ চট্টোপাধ্যায়। 

প্রসঙ্গত, সোমবার বগটুই হত্যাকাণ্ড নিয়ে অধিবেশনের শুরুতেই বিধানসভার ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি বিধায়করা। এরপরই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে অধিবেশন কক্ষ। হাতাহাতি বাঁধে বিজেপি ও তৃণমূল বিধায়কদের মধ্যে। ধস্তাধস্তিতে জামা ছিঁড়ে যায় মনোজ টিগগার। চশমা ভেঙে যায় এক বিজেপি বিধায়কের। নাক ফাটে চুঁচুড়ার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক অসিত মজুমদারের। তড়িঘটরি তাঁকে এসএসকেএমে নিয়ে যাওয়া হয়। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সহ পাঁচজন বিজেপি বিধায়ককে আগামী বাজেট অধিবেশন পর্যন্ত সাসপেন্ড করেন বিধানসভার স্পিকার।