এবার জঙ্গলমহলকে আলাদা রাজ্য করার দাবি সৌমিত্র খাঁ'র

এবার জঙ্গলমহলকে আলাদা রাজ্য করার দাবি সৌমিত্র খাঁ'র

আরোহী নিউজ ডেস্ক:  পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবীতে সরব হয়েছিলেন বঙ্গ বিজেপির নেতারা। এবার পৃথক জঙ্গলমহলের দাবিতে এবার সরব হলেন বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। তাঁর কথায়, রাঢ় বাংলা এবং জঙ্গলমহলকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। কলকাতার বাবুরা নেতা কেনাবেচা করবেন। কিন্তু আলাদা বঙ্গ হলে ক্ষতি কী আছে?এবিষয়ে কেন্দ্রের নেতাদের কাছে জানাবেন বলেও সরব হয়েছেন সৌমিত্র।

সৌমিত্রর কথায়, পশ্চিমবাংলায় থেকে উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন হচ্ছে না। আমাদের নদী, আমাদের বীরভূমের সম্পত্তি, আমাদের জঙ্গলমহলের সম্পত্তি। আপনাদের সঙ্গে আমরা পশ্চিমবঙ্গবাসী হিসাবে নিশ্চয় থাকব। কিন্তু রাঢ়ভূমের উন্নয়নের জন্য কী পাচ্ছি? বর্ধমান, বীরভূম, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, মেদিনীপুর, আসানসোল এই জায়গাগুলোকে কলকাতার বাবুদের কাছে রাখার কোনও মানে হয় না।বিজেপি সাংসদের কথায়, এই জেলাগুলোকে নিয়ে আলাদা করে চিন্তা করলে খুব ভাল হয়। উত্তরবঙ্গ যেমন ভাবতে শুরু করেছে। তেমনই জঙ্গলমহল রাজ্য আমরা কেন চাইব না? কারণ আমরা নেতা কেনাবেচা দেখছি। দামোদরের চরের বালি দিয়ে নেতাবাবুদের বাড়ি তৈরি হবে আর আমার নদীর চরের মানুষরা খেতে পাবে না?

সৌমিত্র খাঁ আরও জানিয়েছেন, উত্তরবঙ্গ যেমন ভাবতে শুরু করেছে। তেমনই জঙ্গলমহল রাজ্য আমরা কেন চাইব না? কারণ আমরা নেতা কেনাবেচা দেখছি। দামোদরের চরের বালি দিয়ে নেতাবাবুদের বাড়ি তৈরি হবে আর আমার নদীর চরের মানুষরা খেতে পাবে না? বিজেপি নেতা বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি ৪৬টি জেলা করতে পারেন, তা হলে আমিও জঙ্গলমহলকে নিয়ে পৃথক রাজ্য গঠনের দাবিতে কেন্দ্রের কাছে দরবার করতে পারি।