মরুপ্রান্তরে জলাভাবে মর্মান্তিক মৃত্যু ২০ জন তৃষ্ণার্ত শরণার্থীর, এখনও নিখোঁজ ৩০জনের বেশি শরণার্থী

মরুপ্রান্তরে জলাভাবে মর্মান্তিক মৃত্যু ২০ জন তৃষ্ণার্ত শরণার্থীর, এখনও নিখোঁজ ৩০জনের বেশি শরণার্থী

আরোহী নিউজ ডেস্ক:  আফ্রিকার অন্তর্গত দেশ চাদের সীমান্তবর্তী এলাকায় মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন ২০জন শরণার্থী। একটি ট্রাক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তাঁদের মৃতদেহগুলি। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, এই ট্রাকটিতে চেপে মরুসীমান্ত পেরিয়ে অন্যত্র পাড়ি দেওয়ার সময়ে মাঝপথে ট্রাকটি খারাপ হয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পানীয় জল না পেয়েই ওই শরণার্থীদের মৃত্যু হয়েছে। ওই ট্রাকের যাত্রী ৩০জনের বেশি শরণার্থী এখনও নিখোঁজ বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের হদিশ পাওয়ার চেষ্টা করছে প্রশাসন।

ট্রাকটি ১২০ কিমি পথ পেরিয়ে লিবিয়ার দিকে যাচ্ছিল। বুধবার মৃতদেহগুলি উদ্ধার করা হলেও মর্মান্তিক এই ঘটনাটি অন্তত দু’সপ্তাহ আগে ঘটেছে বলে অনুমান উদ্ধারকারী দলের। এই ঘটনা শরণার্থীদের অসহায়তার নতুন আরেকটি নিদর্শন। এর আগেও একাধিকবার পৃথিবীর নানা প্রান্তে দেশ ছেড়ে পলাতক শরণার্থীদের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। আফ্রিকার দুই দেশ চাদ ও লিবিয়া পরস্পরের প্রতিবেশী। এখানে গ্রীষ্মের সময় তাপমাত্রা থাকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি। প্রবল গরমে স্বভাবতই জলের চাহিদা বাড়ে। 

যে শরণার্থীরা চাদ থেকে ওই ট্রাকে চেপে লিবিয়ায় যাচ্ছিলেন মরুপ্রান্তরে প্রবল তৃষ্ণার্ত ওই মানুষগুলি গলা ভেজানোর জন্যে একবিন্দু জলও পাননি। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, এর জেরেই তৃষ্ণায় ছটফট করতে করতে মরুভূমির কোলে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন ওই ২০জন শরণার্থী।