আরোহী নিউজ ডেস্ক: অবিরাম বৃষ্টিতে জলমগ্ন গোটা শহর। শহরের উত্তর থেকে দক্ষিণ, বিভিন্ন রাস্তা। একই অবস্থা হাওড়াতেও। অফিস কিংবা কাজে যেতে কোথাও কোমর জল আবার কোথাও বুকজল ঠেলতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। প্রাণ রাস্তায় চলাফেরা করতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তাঁরা। এই পরিস্থিতিতে হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে গিয়ে ঘটল বিপদ। জলমগ্ন রাস্তায় আটকে গেল অ্যাম্বুল্যান্স। তবে অ্যাম্বুল্যান্স চালকের সাহায্যেই হাসপাতালে পৌঁছলেন রোগী।

ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার ড্রেনেজ ক্যানেল রোডে। বৃষ্টির সকালে জলমগ্ন রাস্তা দিয়েই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল কোনার অশোক ঘোরুই নামক হৃদরোগে আক্রান্ত এক রোগীকে। তবে হাসপাতালে যাওয়ার পথে তাড়া থাকায় রাস্তায় জল দেখেও গাড়ি এগিয়ে নিয়ে যান চালক। তবে সামান্য এগোতেই হাঁটু সমান জলে বন্ধ হয়ে যায় অ্যাম্বুল্যান্স। গাড়ি বের করার কোনও উপায় না পেয়ে সেই সময় অ্যাম্বুল্যান্স থেকে নেমে জলে গাড়ি ঠেলতে শুরু করেন অ্যাম্বুল্যান্স চালক রঞ্জিত চট্টোপাধ্যায়। তার তৎপরতায় অ্যাম্বুল্যান্স ঠেলেই অবশেষে রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দেন তিনি।

প্রসঙ্গত, অবিরাম বৃষ্টিতে জলমগ্ন একাধিক এলাকা। এখনও ঠনঠনিয়া, মুক্তারাম স্ট্রিট, মানিকতলা, খিদিরপুর সহ একাধিক এলাকা জলমগ্ন। জল জমে রয়েছে রবীন্দ্র সদনের কাছে এক্সাইড মোড়, পার্ক স্ট্রিট, ধর্মতলা, সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউতে। জল জমে থাকায় সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউয়ের একটি লেন দিয়ে যান চলাচল করছে। জলমগ্ন প্রিন্স গোলাম মহম্মদ শাহ রোড। লেক গার্ডেন্স মোড় থেকে গলফ গ্রিন পর্যন্ত রাস্তায় জল জমেছে।