মন্দির ভাঙচুর কাণ্ডে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের আবেদন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর

মন্দির ভাঙচুর কাণ্ডে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের আবেদন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর

আরোহী নিউজ ডেস্ক : উত্‍সবের মরশুমে বাংলাদেশের একাধিক দুর্গাপুজো মন্ডপে তাণ্ডব চলেছে। ভাঙা হয়েছে প্যান্ডেল, মাতৃপ্রতিমা। এমনকি বিগত নয়দিন ধরে নোয়াখালিতে একটি ইসকন মন্দিরে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে তিন জনের। এই ঘটনার রেশ ওপার বাংলার পাশাপাশি ছড়িয়ে পড়েছে এপার বাংলাতেও। এই ঘটনার প্রতিবাদে তিনদিন রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি।

সোমবার বিধাননগর নাগরিক মঞ্চের সদস্যরা সল্টলেক করুনাময়ী মোড়ে বাংলাদেশের ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ জানাল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। তিনিও এই প্রতিবাদকে সমর্থন জানান। তিনিও রাস্তায় বসে পড়েন। বৃষ্টিভেজা রাস্তায় শুয়ে বসে আজ প্ল্যাকার্ড ও স্লোগান সহযোগে প্রতিবাদ জানায় বিধাননগর নাগরিক মঞ্চ। 

বিক্ষোভের পর সায়ন্তন বসু বলেন, "বাংলাদেশে হিন্দু বাঙালিদের ওপর যে অত্যাচার হয়েছে তার প্রতিবাদ জানাতে আমরা এসেছি। কেউ কেউ বলছেন নয়-দশ জন ভক্ত দর্শনার্থী খুন হয়েছে। একই সঙ্গে জামাত বা ইসলামিক মৌলবাদীদের পাশাপাশি আমাদের প্রতিবাদ এই রাজ্যের কিছু তথাকথিত ধামাধারী বুদ্ধিজীবীর বিরুদ্ধে। যারা পাঁচশো, হাজার, দু'হাজার টাকায় বিক্রি হয়ে যায় তাঁদের বিরুদ্ধেও আমাদের ধিক্কার। আমরা প্রধানমন্ত্রীকেও হস্তক্ষেপের জন্য আবেদন করছি।" সায়ন্তন বসু আরও জানান যারা আগে মুসলিমদের পয়সায় মাছ খেতে তারা এখন তৃণমূলের পয়সায় মাংস খায়। আর তারাই আবার হাসিনার ভজনা করে চিঠি লেখার কথা বলছে এটা বন্ধ হোক।