আফগানিস্তানকে জরুরি সাহায্যের প্রস্তাব দিল চিন

আফগানিস্তানকে জরুরি সাহায্যের প্রস্তাব দিল চিন

আরোহী নিউজ ডেস্ক: আফগানিস্তানে শুরু হয়েছে তালিবান সরকার। আর এবার তাদের পাশে এগিয়ে এলো চিন। জানা গেছে, খাদ্য সরবরাহ ও করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন সহ মোট ২০০ মিলিয়ন ইউয়ান অর্থাৎ, ৩১ মিলিয়ন ডলার দিয়ে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে চিন। প্রসঙ্গত; বেইজিং জানিয়েছিল, তারা তালিবান সরকারকে নানাভাবে সাহায্য করতে প্রস্তুত। এমনকি তারা এও বলেন, নতুন অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রতিষ্ঠা, আফগানিস্তানে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ছিল। এছাড়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন জানিয়েছেন, নতুন তালিবান সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়ার থেকে দেশ এখনও অনেক দূরে রয়েছ, যেখানে চিন এই স্বীকৃতি দেওয়ার ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছে। তবে, এবার আফগানিস্তান সরকারকে সহায়তা করার কথা ঘোষণা করলেন চিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। বুধবার আফগানিস্তানের প্রতিবেশী বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বৈঠক করে এমন সিদ্ধান্তেই উপনীত হয়েছেন তিনি। এমনকি তিনি অন্যান্য দেশকে চিনের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে আফগানিস্তানকে সহায়তা করার আর্জি ও জানিয়েছেন। তবে, চিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের ব্যাপারেও কণ্ঠস্বর সমালোচনা করে বলেছে, ওই দেশের সৈন্যরা আফগানিস্তানে ধ্বংসযজ্ঞ করেছে। প্রসঙ্গত; তালিবান কর্মকর্তারা চিনকে আফগানিস্তানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিকে পুনর্গঠনে চিনা বিনিয়োগ এবং সহায়তার ব্যাপারে আশা প্রকাশ করেছেন। সর্বোপরি, তালিবানদের সাথে চিনের এই সম্পর্ক প্রতিবেশী দেশগুলোর উপর কতটা প্রভাব ফেলতে চলেছে, এখন সেটাই দেখার।