আরোহী নিউজ ডেস্ক: সেরাম ইনস্টিটিউটের কোভিশিল্ডের একটি ডোজ এবং ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিনের একটি ডোজ। এই দুই ধরনের টিকা মিশিয়ে স্বেচ্ছাসেবকদের ওপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগের সুপারিশ করল সেন্ট্রাল ড্রাগ কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন বা সিডিএসসিও সাবজেক্ট এক্সপার্ট কমিটি। এই নিয়ে চূড়ান্ত ছাড়পত্র দেওয়ার কথা ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া বা ডিসিজিআইয়ের।

300 জন সুস্থ স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই ককটেল ভ্যাকসিন পরীক্ষার আর্জি জানিয়েছিল ভেলোরের সিএমসি অর্থাৎ ক্রিশ্চিয়ান মেডিকেল কলেজ। সম্প্রতি কমিটির বৈঠকে এই আর্জি নিয়ে আলোচনার মধ্য দিয়ে পরীক্ষামূলক গবেষণা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে একই ব্যক্তি দুটি আলাদা ভ্যাকসিন ডোজ নিতে পারেন কিনা। বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি দুটি আলাদা ভ্যাকসিন প্রয়োগ অনেক ক্ষেত্রেই বাড়ছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল অ্যস্টাজেনেকার প্রথম ডোজের পর মর্ডানার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন।

যদিও মিশ্র টিকায় এখনো ভারত সরকার সবুজসংকেত দেননি, বিষয়টি আলোচনার পর্যায় রয়েছে। এদিন কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ভারতের দুটি টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা মিশ্র টিকা প্রয়োগের পরীক্ষামূলক গবেষণা চালাবে। ইতিমধ্যেই পাঁচ থেকে 17 বছরের ছেলে মেয়েদের ওপর বায়োলজিক্যাল-ই সংস্থার টিকার দ্বিতীয় এবং তৃতীয় দফার পরীক্ষামূলক প্রয়োগে সম্মতি দেওয়া হয়েছে।