আরোহী নিউজ ডেস্ক: ফের একবার ভয়াবহ দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল ২৮ নম্বর জাতীয় সড়ক। আর সেই দুর্ঘটনার জেরেই প্রাণ চলে গেল ১৮ জন নিরীহ শ্রমিকের। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বরাবাঁকি জেলায়।

পুলিশ সূত্রে খবর, ২৮ নম্বর জাতীয় সড়ক দিয়ে লুধিয়ানা থেকে বিহারগামী ১৪০ জন শ্রমিক বোঝাই করা একটি বাস যাচ্ছিল। মাঝপথে বাসটি খারাপ হয়ে যাওয়ায় সারাই করার জন্য রাস্তার ধারেই বাসটিকে রাখা হয়েছিল। আর সেই ফাঁকেই বাস থেকে নেমে এসেছিলেন শ্রমিকদের একাংশ। সারাই করতে সময় লাগায় রাস্তার উপরেই শুয়ে পড়েছিলেন ১৮ জন শ্রমিক। হয়তো তারা জানত না, তাদের সেই ঘুমই তাদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়াবে। আর এরপরই ঘটে সেই ভয়াবহ দুর্ঘটনা। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে একটি ট্রাক পিছন থেকে এসে ধাক্কা মারে শ্রমিক বোঝাই করা ওই বাসটিকে। আর সেখানেই মৃত্যু ঘটে রাস্তায় শুয়ে থাকা ওই ১৮ জন শ্রমিকের। আহত হন ১৫ জনের ও বেশি শ্রমিক। ঘটনাটি জানতে পাওয়া মাত্রই তৎক্ষণাৎ সেখানে পৌঁছান লখনউ পুলিশের কর্মকর্তারা। শুরু হয় উদ্ধারকার্য। আহতদের গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

ঘটনাটি নিয়ে লখনউ পুলিশের এডিজি এস এন সাবাত জানিয়েছেন- “বরাবাঁকি জেলায় রাম সানেহি ঘাটের নিকট এই পথ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। ১৮ জন নিরীহ শ্রমিক তাদের প্রাণ হারিয়েছেন এবং ১৫ জনের ও বেশি শ্রমিক আহত হওয়ায় গুরুতর অবস্থায় তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উদ্ধারকার্যের জন্য অতিরিক্ত পুলিশকর্মীদের ও ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।” ঘটনাটি জানতে পাওয়া মাত্রই গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। টুইটারে শোক প্রকাশ করে তিনি জানিয়েছেন, নিহতদের পরিবারের জন্য তার সমবেদনা রইল। তার পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ বাবদ নিহতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা ও আহতদের পরিবারকে ৫০,০০০ টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত ও নিয়েছেন তিনি।