আরোহী নিউজ ডেস্ক: ফের সন্দেহজনক ড্রোনের হদিস মিলল সীমান্তে। বৃহস্পতিবার রাতে সীমান্তে তিন বার পাক ড্রোন ঢুকেছে বলেই ভারতীয় সেনা সূত্রে খবর। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বাহিনীর একটি রিপোর্টে থেকে জানা গিয়েছে, স্বাধীনতা দিবসের আগে জম্মু-কাশ্মীরে বড় হামলার ছক কষছে জঙ্গিরা। বিশেষত হিন্দু অধ্যুষিত জম্মুর মন্দিরগুলি জঙ্গি গোষ্ঠীগুলির নিশানায় রয়েছে বলেই সেই রিপোর্টে জানানো হয়েছে। তার মধ্যেই ফের সীমান্তে ড্রোনের হদিস মেলায় সতর্ক রয়েছে সেনা।

জম্মু বিমানবন্দরে ড্রোন হামলার পর থেকেই বারবার জম্মুর আকাশে সন্দেহজনক ড্রোনের দেখা মিলেছে। যার জেরে যথেষ্ট চিন্তিত সেনা মহল। চলতি মাসে সেনা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াতের সফরের মধ্যেই ফের দেখা মেলে ড্রোনের। আতঙ্ক ছড়ায় উপত্যকায়। জম্মু ও কাশ্মীরে সীমান্তের ওপার থেকে ড্রোন হানার নেপথ্যে বড়সড় ষড়যন্ত্র রয়েছে আশঙ্কা ছিল সেনা মহলের। সেই আশঙ্কা যে সত্যি তা প্রমাণ করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বাহিনীর রিপোর্ট।

গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুসারে চলতি বছরের ৫ অগাস্ট বড়সড় হামলার পরিকল্পনা করছে লস্কর-ই-তৈবা, জৈশ-ই-মহম্মদের মতো পাক সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলি। কারণ ২০১৯ সালে ওই দিনটিতেই জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করেছিল ভারত সরকার। সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়ানোর উদ্দেশ্যে হিন্দু মন্দির গুলিকেই নিশানা করা হতে পারে বলেই জানা গিয়েছে। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার রাতে ফের ড্রোনের হদিস মেলায় বাড়ছে আতঙ্ক। সেনা সূত্রে খবর, সাম্বা সেক্টরের বারি-ব্রহ্মণা, চিলাদায়া এবং গাগওয়াল এলাকায় তিন বার ভারতীয় আকাশসীমায় পাক ড্রোনের উপস্থিতি নজরে এসেছে। যার কারণে লাল সতর্কতা জারি হয়েছে সীমান্তে।