কলকাতার কাছাকাছি রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর!  দেখুন কোথায় হবে?

কলকাতার কাছাকাছি রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর!  দেখুন কোথায় হবে?

আরোহী নিউজ ডেস্ক: রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর! তাও আবার কলকাতার অদূরেই তৈরি হবে! দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার জেলা প্রশাসনকে রাজ্য সরকারের তরফে দেওয়া নির্দেশিকায় সেই সম্ভাবনাই প্রবল৷ সূত্রের খবর, প্রায় তিন কিলোমিটার দীর্ঘ রানওয়ে বিশিষ্ট বিমানবন্দর তৈরির মতো জমি চিহ্নিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷

শুধু তাই নয়, বিমানবন্দরে হ্যাঙ্গার তৈরি করার মতো পর্যাপ্ত জমিও থাকতে হবে বলে নির্দেশে বলা হয়েছে৷ বোয়িং ৭৭৭-এর মতো বড় বিমান যাতে নামতে পারে, এমন পর্যাপ্ত জায়গা নির্ধারণের নির্দেশ এসেছে নবান্ন থেকে ।

রাজ্যের একমাত্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হওয়ায় কলকাতা বিমানবন্দরের উপরে চাপ বাড়ছে৷ সেই কারণেই কলকাতার অদূরে আরও একটি বড় বিমানবন্দর তৈরি করতে চাইছে রাজ্য সরকার৷ কয়েকদিন আগে রাজ্যের মুখ্যসচিবের তরফে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার জেলা প্রশাসনকে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে খবর৷ যদিও বিমানবন্দর তৈরির জন্য রাজ্য সরকার এবং জেলা প্রশাসনের প্রাথমিক পছন্দের তালিকায় রয়েছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার ভাঙড় এলাকা৷

এর পাশাপাশি পুরুলিয়ার ছড়রাতেও রাজ্য সরকার একটি বিমানবন্দর তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে নবান্ন সূত্রে খবর৷ বিমানবন্দর তৈরি করে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানোর যাবে বলে মন বিশেষজ্ঞদের । আর তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন যে যেনতেন প্রকারেন বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে হবে।  সেকারণেই রাজ্যের রাজধানী তথা প্রাণকেন্দ্র কলকাতার সঙ্গে গোটা দেশ এবং বিদেশের বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করা প্রয়োজন৷ কলকাতা বিমানবন্দরে যেভাবে চাপ বাড়ছে, তাতে সেখানে নতুন করে খুব বেশি সংখ্যক বিমানের ওঠানামা করা সম্ভব নয়৷ সেই কারণেই কলকাতার কাছে নতুন বিমানবন্দর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য৷ যদিও পুরো ব্যাপারটাই এখন পরিকল্পনা স্তরে রয়েছে বলেই নবান্ন সূত্রে খবর।
বর্তমান রাজ্য সরকারের আমলে গোটা রাজ্যেই বিমান পরিষেবা ছড়িয়ে দেওয়ার উপর জোর দেওয়া হয়েছে৷ নিজেদের দেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও উন্নত করার লক্ষ্যেই চালু হয়েছে অণ্ডাল বিমানবন্দর৷ উত্তরবঙ্গের মালদহ, বালুরঘাট, কোচবিহার বিমানবন্দরেও দ্রুত বিমান পরিষেবা শুরু করতে তৎপর হয়েছে রাজ্য সরকার৷